আঞ্চলিকসর্বশেষ

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটের পিছে দৌড়ঝাপে প্রার্থীরা।

আয়নাল হক রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে কুড়িগ্রাম-৪ ভোটের পিছে দৌড়ঝাপে প্রার্থীরা। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জামায়াতসহ আন্দোলনরত দল গুলো অংশ না নিলেও ২৮ কুড়িগ্রাম-৪ (রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী) ৩ উপজেলা নিয়ে এ আসনে ভোটের পিছে দৌড়ঝাপে লড়াইয়ে রয়েছেন ১১ প্রার্থী।

 

নির্বাচনে

নির্বাচনে মাঠে ভোটারদের মধ্যে তেমন আমেজ না থাকলেও প্রার্থীদের লোকজন নিয়ে মিছিল, মিটিং, পোষ্টার ও মোটর সাইকেল বহরে আমেজ রয়েছে। প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চেয়ে বেরাচ্ছেন, উন্নায়নের জয়ও গান গাইছেন । প্রার্থীরা হলেন, নৌকা প্রতীকে , তথ্য ও গবেষনা উপ-কমিটির সদস্য। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এ্যাড বিপ্লব হাসান পলাশ, সাইকেল প্রতীকে জাতীয় পার্টি (জেপি)র’ প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক এমপি রুহুল

আমিন, লাঙ্গল প্রতীকে উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক একেএম সাইফুর রহমান বাবলু , গামছা প্রতীকে কৃষক শ্রমীক জনতালীগের আবু শামীম হাবিব, সোনালী আশ প্রতীকে তৃনমূল বিএনপির আতিকুর রহমান খাঁন, ডাব প্রতীকে বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক উপসহকারি পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল হামিদ, স্বতন্ত্র প্রাথর্ী উচ্চ আদালত থেকে রায় পাওয়া ঢেঁকি প্রতীকে ডাঃ ফারুকুল ইসলাম ফারুক, কাচি প্রতীকে সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগ এ্যাডভোকেট মাসুম ইকবাল, ঈগল প্রতীকে সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী, ট্রাক প্রতীকে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু ও নুর-ই শাহী ফুল কলার ছড়ি প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী লড়াই করছেন।

প্রার্থীরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের স্ব-স্বপক্ষে কর্মীরা সমর্থকদের সাথে নিয়ে এলাকায় এলাকায় ভোটারদের দ্বারে দ্বারে, বাড়ি বাড়ি উঠান বৈঠকের পাশাপাশি হাট বাজারে ও পথজাত্রীদের কাছে গিয়ে নির্বাচনে নিজেদের প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করছেন।

নির্বাচনে
নির্বাচনে প্রচারনার মাঠে নৌকার প্রার্থী বিপ্লব হাসান পলাশ, ঢেঁকি প্রতীকের ডাঃ ফারুকুল ইসলাম ফারুক ও ট্রাক প্রতীকে শহিদুল ইসলাম শালু, অন্যান্য প্রার্থীদের চেয়ে এগিয়ে যাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে। প্রার্থীরা এলাকায় এলাকায় গিয়ে বিভিন্ন উন্নয়নের জয়ও গানের মধ্যে ব্রম্মপুত্র নদের বামতীর সংরক্ষন করে নদী ভাঙ্গন থেকে রক্ষা করা, দেওয়ানগঞ্জ থেকে রৌমারী রেল লাইন স্থাপন, কর্মসংস্থান প্রশিক্ষণ, রাস্তাঘাট উন্নয়নসহ তুলে ধরে বক্তব্যও দিচ্ছেন এবং রৌমারী, রাজিবপুর ও চিলমারী উপজেলাকে বদলে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছেন। অন্যদিকে চায়ের দোকান, হোটেল রেস্তোরা ও জনসমাগমে প্রার্থীদের পক্ষে বি-পক্ষে ভোটের সমীকরণ ও পর্যবেক্ষণ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে নানা হিসাব নিকাশ চলছে।

নির্বাচনে

গত ১৮ ডিসেম্বর সোমবার ও উচ্চ আদালত থেকে রায় পাওয়া ২ জন জেলা প্রশাসক কুড়িগ্রাম ও রিটানিং কর্মকর্তা সাইদুল আরীফ এসব প্রতীক বরাদ্দ দেন। এই আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৪০৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৬৮ হাজার ৭০৮জন ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৬৯ হাজার ৬৮৯ জন ও হিজরা ভোটার ৯ জন। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৩০ টি।

আরও পড়ুন

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নৌকায় ভোট চাইলেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button