রাজনীতিসর্বশেষ

২৮ অক্টোবর বিএনপির পরিণতি হবে ১০ ডিসেম্বরের মতো

ওবাইদুল কাদের বলেছেন বিএনপি

ওবায়দুল কাদের বলেন, “১০ ডিসেম্বর (২০২২) বেগম জিয়া দাবি করেছিলেন যে তিনি দেশ চালাবেন। ২৮ অক্টোবর তার বিএনপির পরিণতি হবে ১০ ডিসেম্বরের মতো।

বিএনপি
বিএনপি

 

তিনি জানান, গত ১০ ডিসেম্বর তারা গোলাপবাগ গরুর হাটের গর্তে পড়ে কোথায় যায় দেখার অপেক্ষায়। আজ রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে পূজা উদ্যাপন পরিষদের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

আগামী ২৮ অক্টোবর ঢাকায় গণসমাবেশ ডেকেছে বিরোধী দল বিএনপি। অনুষ্ঠান সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, “১০ ডিসেম্বর (২০২২) বেগম জিয়া দাবি করেছিলেন যে তিনি দেশ চালাবেন। ২৮ অক্টোবর তার বিএনপির পরিণতি হবে ১০ ডিসেম্বরের মতো।

এটাই হবে।” কোথায় গিয়ে খাদে পড়ে গেল।গোলাপবাগ গরুর হাটের গর্তে পড়ে গেল ১০ ডিসেম্বর, কোথায় যাবেন সেটা দেখার অপেক্ষায়।বিএনপির আন্দোলনের ঘোষণা প্রসঙ্গে সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির পরিণতি হবে শেষ পরিনতি। তাদের জবাব না দেওয়াই ভালো।আপনি যখন জেগে থাকেন তখন মিথ্যা বলেন,যখন সত্য বলেন?বিএনপি পরিণতি  তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করেছে।বাংলাদেশে এই ব্যবস্থা চালু আছে।এর বাস্তবতা নেই।

বিএনপির পরিণতি
বিএনপির পরিণতি

 

আদালত সঠিকভাবে উপলব্ধি করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ।বাংলাদেশের জনগণ তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা ফিরিয়ে ২০০১ ও ২০০৬ সালের পুনরাবৃত্তি চায় না।কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার পূজা নিয়ে বিরূপ মন্তব্য ও এরপরের ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের বলেন, বিষয়টি দলগতভাবে আমাদের নজরে এসেছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “১০ ডিসেম্বর (২০২২) বেগম জিয়া দাবি করেছিলেন দেশ চালাবেন। ২৮ অক্টোবর তার বিএনপির পরিণতি হবে ১০ ডিসেম্বরের মতো।

আমরা সতর্ক. উদ্বেগ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে তথ্য নিয়েছেন। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে দলটি। কেউ যদি কোনো অপকর্ম করে থাকে, আওয়ামী লীগের চেতনার পরিপন্থী কোনো কাজ করে থাকে তাহলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সম্প্রতি আকম বাহাউদ্দিন বাহার বলেছেন, ‘পুজোর সময় মদ খাওয়া ও নাচ-গান বন্ধ করতে হবে। কুমিল্লা থেকে শুরু হোক মাদক মুক্ত পূজা। তার বক্তব্যের সমালোচনা করে বিবৃতি দিয়েছে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ। এর প্রতিবাদে ১৪ অক্টোবর কুমিল্লায় বিক্ষোভ করে সংগঠনটি।

 

বিএনপির পরিণতি
বিএনপির পরিণতি

এতে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। মামলাও হয়েছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের সময় হিন্দুরা না থাকলে আমরা যেতে পারি না কিন্তু হিন্দুরা বিপদে পড়লে আমরা তাদের পাশে দাঁড়াই না।’ এটা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নয়। আমার ভোটের সময় তাদের আমাকে দরকার যখন তারা তাদের ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠানে আমাদের সমর্থন ছাড়া জীবনযাপন করে, যারা তা করে তারা দুষ্ট। আমি তাদের হিন্দু-মুসলিম বুঝি না। তাদের পরিচয় বখাটে। এসব দুষ্ট মুসলমান তাদের মধ্যে নেই তা বলার উপায় নেই। ওবায়দুল কাদের স্বীকার করেছেন, সম্প্রতি আওয়ামী লীগের কিছু লোক সাম্প্রদায়িকতায় লিপ্ত হয়েছে

ওবায়দুল কাদের বলেন, “১০ ডিসেম্বর (২০২২) বেগম জিয়া দাবি করেছিলেন দেশ চালাবেন। ২৮ অক্টোবর তার বিএনপির পরিণতি হবে ১০ ডিসেম্বরের মতো।

২০২১ সালে দুর্গাপূজার সময় বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা মোকাবেলায় সাংগঠনিক ব্যর্থতা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। এ সময় যাতে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার মতো ঘটনা না ঘটে সেজন্য দলের নেতা-কর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপির পরিনতি খারাপ হবে , এটা দাবি করার কোনো উপায় নেই। কারণ, কিছু ঘটনা ঘটে, বাড়িঘরে আগুন লাগে, জমি বেদখল হয়, কোনো না কোনো বর্বর উদ্দেশ্যেই ঘটে, এমন ঘটনা অনেকেই ঘটায়। ধর্মীয় সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিভঙ্গি যদি গালি দিয়ে প্রকাশ করা হয়, তা খুবই দুঃখজনক বিএনপির পরিনতি।

আমরা দলগতভাবে এসব বিষয় দেখছি। আমরা তাদের সম্পর্কে সতর্ক করছি। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে আমরা কিছু ব্যবস্থাও নিতে শুরু করেছি। বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, উপ-দপ্তর সম্পাদক সাইম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য নির্মল কুমার চ্যাটার্জি, পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি জেএল ভৌমিক, সাধারণ সম্পাদক চন্দ্রনাথ পোদ্দার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সাধারণ সম্পাদক ছিলেন সন্তোষ শর্মা, দপ্তর সম্পাদক মিলন কান্তি প্রমুখ বলেনন বিএনপির পরিণতি হবে শেষ পরিনতি।

আরও পড়ুন

বিএনপিকে উপযুক্ত জবাব দিতে প্রস্তুত ওবায়দুল কাদের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button