আন্তর্জাতিকসর্বশেষ

এবার গাজায় হামলায় ইসরায়েল ব্যবহার করছে‘সাদা ফসফরাস’

ফিলিস্তিনি গাজায় ইসরায়েল চলমান হামলায় সাদা ফসফরাস ব্যবহার করছে।

ফিলিস্তিনি গাজা উপত্যকায় ইসরায়েল তার চলমান হামলায় সাদা ফসফরাস ব্যবহার করছে। লেবাননে হামলায় তারা সাদা ফসফরাসও ব্যবহার করেছিল। নিউইয়র্কভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে যে সাদা ফসফরাস ব্যবহার বেসামরিক নাগরিকদের জন্য গুরুতর এবং দীর্ঘমেয়াদী স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি করে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থার মতে, সাদা ফসফরাস মানুষকে মারাত্মকভাবে পোড়াতে পারে। বাড়িতে আগুন লাগতে পারে। জনবহুল এলাকায় সাদা ফসফরাস ব্যবহার অবৈধ।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাদা ফসফরাস একটি অত্যন্ত দাহ্য রাসায়নিক। এটি অক্সিজেনের সংস্পর্শে এলে পুড়ে যায়। সাদা ফসফরাস ঘন সাদা ধোঁয়া তৈরি করে। বিশেষ করে জনবহুল এলাকায় অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হলে এই রাসায়নিক অত্যন্ত বিপজ্জনক।

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী রয়টার্সকে জানিয়েছে যে তারা বর্তমানে গাজায় সাদা ফসফরাস অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে সচেতন নয়। তবে লেবাননে এসব অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়ে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী কোনো মন্তব্য করেনি।

সাদা ফসফরাস

 

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৮-০৯ সালে গাজায় হামলায় সাদা ফসফরাস ব্যবহার করেছিল ইসরাইল। অনেক মানবাধিকার গোষ্ঠী তখন ইসরাইলকে যুদ্ধাপরাধের জন্য অভিযুক্ত করে।

আল-জাজিরা জানায়, গাজায় ইসরায়েলের সাদা ফসফরাস ব্যবহারের নিন্দা করেছেন মার্কিন কংগ্রেসম্যান ম্যাক্সওয়েল ফ্রস্ট।

আইন প্রণেতা, একজন ডেমোক্র্যাট, বলেছেন যে তিনি আরও নিরীহ প্রাণ হারিয়ে দুঃখিত। গাজাবাসী এই অবস্থাকে পৃথিবীতে নরক বলে। গাজায় প্রায় 2 মিলিয়ন মানুষ বাস করে, যার অর্ধেক শিশু।

ম্যাক্সওয়েল ফ্রস্ট বলেন, ইসরায়েলকে অবশ্যই আন্তর্জাতিক আইন মেনে চলতে হবে। আন্তর্জাতিক আইন সাদা ফসফরাস ব্যবহার, বেসামরিক লোকদের উপর বোমা হামলা এবং ব্যাপক শাস্তি নিষিদ্ধ করে।

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস গত শনিবার ইসরায়েলে নজিরবিহীন হামলা চালায়। জবাবে ইসরাইল পাল্টা জবাব দেয়।

দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে এ পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। ইসরায়েলে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৩০০। গাজায় ইসরায়েলের নির্বিচার হামলায় ১,৪০০ এরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button