সর্বশেষরাজনীতি

২৮ অক্টোবর বায়তুল মোকাররমের গেটে সমাবেশ আওয়ামী লীগের

পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে দেওয়া চিঠিতে বলা হয়, আগামী ২৮ অক্টোবর আওয়ামী লীগ জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেটে সমাবেশ করতে চায়।

২৮ অক্টোবর
আওয়ামী লীগ

বৃহস্পতিবার (অক্টোবর) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজের লেখা চিঠি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।এতে বলা হয়, ২৮ অক্টোবর জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেটে শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ আয়োজনের সব ধরনের প্রস্তুতি (মঞ্চ নির্মাণ ও প্রচার) ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

এ অবস্থায় স্বল্প সময়ের মধ্যে অন্য কোনো স্থানে নতুন সভার প্রস্তুতি নেওয়া কঠিন হবে। তাই ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের উদ্যোগে আয়োজিত শান্তি ও উন্নয়ন সভাস্থলে উল্লিখিত বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ এবং প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা, শৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাসহ সকল বিষয়ে সহযোগিতা করার বিনীত অনুরোধ করছি।

২৮ অক্টোবর আওয়ামী লীগ ও এর আশপাশের এলাকায় ড.এর আগে গতকাল পল্টন থানা থেকে দেওয়া চিঠিতে বলা হয়েছে, নিরাপত্তার কারণে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগকে বিমানবন্দরের দক্ষিণ গেটে সমাবেশ করতে না দিলে বিকল্প দুটি জায়গার নাম দিতে হবে।

২৮ অক্টোবর
আওয়ামী লীগ

একই চিঠিতে আরও ছয়টি বিষয়ে জানতে চান পল্টন থানার ওসি। সেগুলো হলো- জনসমাবেশ কবে শুরু হবে এবং কখন শেষ হবে, কত জনসমাগম হবে, জাতীয় মসজিদ ব্যাজতুল মুখরামের দক্ষিণ গেটের সামনে থেকে ঠিক কোন জায়গায় সমাবেশ হবে, কোথায় কোথায় মাইক বসানো হবে।

সমাবেশে বক্তৃতা দেবেন, এবং অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের নেতারা এতে অংশ নেবেন কি নেবেন না এবং সভায় অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য তাদের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে এবং তা হলে তাদের সংখ্যা কত হবে?জবাবে চিঠিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ বলেছে, তাদের জনসভায় সকাল ১০টায় জনসমাগম শুরু হবে এবং সন্ধ্যা ৭টায় শেষ হবে, এতে প্রায় দুই লাখ লোকের সমাগম হবে।

২৮ অক্টোবর

র‌্যালিটি জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ গেট থেকে পল্টন মোড়, জিপি মোড়, শিক্ষা ভবন, গোলাপ শাহ মাজার, নগর ভবন, নবাবপুর রোড, মহানগর থিয়েটার রোড, দৈনিক বাংলা মোড়, মাটিঝিল রোড ও স্টেডিয়াম রোড পর্যন্ত বক্তৃতা ও প্রচারের জন্য বিস্তৃত হবে। সেসব স্থানে মাইক বসানো হবে, যাতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মী, সমর্থক, নারী সংগঠন, তরুণ প্রজন্ম ও সর্বস্তরের জনগণ অংশগ্রহণ করবে এবং অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হবে। মিটিং

পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ছাড়াও একই দিনে বিএনপির সমাবেশের জন্য আরও দুটি স্থানের নাম চেয়েছে পল্টন থানার পুলিশ। জবাবে বিএনপিও বলেছে, তারা নয়া পল্টনে সমাবেশ করতে চায়।বিএনপি তাদের চিঠিতে বলেছে, ২৮ অক্টোবর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে শান্তিপূর্ণ সমাবেশের সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। অন্য কোনো ভেন্যুতে যাওয়া সম্ভব হবে না।

আরও পড়ুন

গ্রেফতার সারাদেশে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button